ঈদুল ফিতরের সুন্নাহ আমলসমূহ নিম্নরূপঃ

 চাঁদ দেখার পর থেকে ঈদের সালাত পর্যন্ত তাকবীর দেওয়া।

 ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বে সাদাক্বাতুল ফিতর আদায় করা।

 ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বে গোসল করা।
(ইবনে উমার (রা.) গোসল করে ঈদের সালাতে বের হতেন।)

 উত্তম কাপড় পরিধান করা।

 সুগন্ধি ব্যবহার করা
(রাসূলুল্লাহ সা. হাতের তালুতে সুগন্ধি ব্যবহার করতেন।)

খেজুর বা মিষ্টি জাতীয় কিছু খেয়ে ঈদুল ফিতরের সালাতে বের হওয়া।
(ঈদুল আযহায় এর বিপরীত, কিছু না খেয়ে সালাতে যাওয়া এবং কুরবানীর পশুর মাংস দিয়ে দিনের খাওয়া শুরু করা সুন্নাহ।)

 এক রাস্তা দিয়ে ঈদগাহে যাওয়া, আরেক রাস্তা দিয়ে ফিরে আসা।

 পরিবারের সবাইকে নিয়ে ঈদের সালাতে যাওয়া, এমনকি ঋতুমতী নারী ও যুবতীদেরকেও।

 দুই রাকাত ঈদের সালাত আদায় করা।
(রাসূলুল্লাহ (সা.) প্রথম রাকাতে সূরা আ’লা, দ্বিতীয় রাকাতে সূরা গাশিয়াহ পড়তেন, তবে এটা আবশ্যক না।)

 সালাতের পরে খুতবাহ শোনা।

 পরস্পর শুভেচ্ছা বিনিময় করা।
(সাহাবারা শুভেচ্ছা বিনিময় করার ক্ষেত্রে “তাক্বাব্বালাল্লাহু মিন্না ওয়া মিনকুম” বলতেন। তবে ‘ঈদ মুবারাক’ বা ‘ঈদ সাঈদ’ বললেও সমস্যা নেই।)

বি: দ্র: যারা ঈদের সালাত জামাতে পড়বেন, তারা সালাতের নিয়মটা আরেকবার দেখে নিন, নচেৎ সালাতের সময় নিয়মকানুন নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়তে পারেন।

عيد مبارك.
عيدكم سعيد.
تقبل الله منا ومنكم…

[মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বক্তব্য থেকে ঈষৎ সংক্ষেপিত ও পরিমার্জিত]