সূরা হাদীদের এই আয়াতটি জীবনের পর্যায়গুলোকে খুব সুন্দরভাবে চিত্রায়িত করে-

اعْلَمُوا أَنَّمَا الحَياةُ الدُّنْيَا لَعِبٌ وَلَهوٌ وَزِينَةٌ وَتَفَاخُرٌ بَيْنَكُمْ وَتَكَاثُرٌ في الأَمْوَالِ وَالأَوْلاَدِ كَمَثَلِ غَيْثٍ أعْجَبَ الْكُفّارَ نَبَاتُهُ ثُمَّ يَهِيجُ فَتَرَاهُ مُصْفَرّاً ثُمَّ يَكُوْنُ حُطَاماً وَفِي الآخِرَةِ عَذابٌ شَديدٌ وَمَغْفِرَةٌ مِنَ الله ورِضْوَانٌ وَمَا الحَيَاةُ الدُّنْيَا إِلاَّ مَتَاعُ الغُرُورِ

“জেনে রেখো, পার্থিব জীবন তো ক্রীড়া-কৌতুক, জাঁকজমক, পারস্পরিক অহমিকা প্রকাশ, ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততিতে প্রাচুর্য লাভের প্রতিযোগিতা ব্যতীত আর কিছুই নয়। এর উপমা বৃষ্টির মত, যার দ্বারা উৎপন্ন (সবুজ)ফসল কৃষকদেরকে চমৎকৃত করে, অতঃপর তা শুকিয়ে যায়, ফলে তুমি তা পীতবর্ণ দেখতে পাও, অবশেষে তা খড়-কুটোয় পরিণত হয়। এবং পরকালে রয়েছে কঠিন শাস্তি এবং আল্লাহর ক্ষমা ও সন্তুষ্টি। আর পার্থিব জীবন তো ছলনাময় ভোগ ব্যতীত কিছুই নয়।” [সূরা হাদীদ ২০]

দুনিয়াবিমুখ একজন সালাফ বলেছিলেন:

“দুনিয়ার জীবনকে দুনিয়াদার লোকদের জন্যই ছেড়ে দাও, ঠিক যেমন তারা আখিরাতকে আখিরাতমুখী লোকদের কাছে ছেড়ে দিয়েছে। দুনিয়ার জীবনে মৌমাছির মত হও, সে যখন খায় তখন ফুলের মধু খায়, সে যখন অন্যের জন্য খাওয়ার ব্যবস্থা করে তখনও মধুরই ব্যবস্থা করে।”