গত পর্বে আমরা দুটো Q নিয়ে আলোচনা করেছিলাম- ইকিউ ও আইকিউ। তবে Q কি কেবল এই দুই প্রকারেরই? উহু, এই দুটো মূল প্রকার হলেও যোগ্য লীডারশীপের জন্য আরও কিছু Q নিয়ে মনোরসায়নবিদেরা আলোচনা করে থাকেন। সেগুলো হলো- SQ, AQ, PQ।

PQ হচ্ছে, Physical Quotient। একজন লীডারের যেমন বুদ্ধিমত্তা, আবেগজনিত বুদ্ধি ইত্যাদির প্রয়োজন, তেমনি তার শারীরিক এক্সিলেন্সও প্রয়োজন। তাকে বুঝতে হয়ে শরীর ও মনের যোগসাজশ, হতে হয় স্বাস্থ্যসচেতন। কেননা, সুস্থতা ছাড়া অন্য কোন সেক্টরে দক্ষতা অর্জন করা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই নিয়মিত শরীরচর্চা, ব্যায়াম, বডি ফিটনেস বজায় রাখা, সুষম খাবার গ্রহণ, মানসিক স্বাস্থ্যের প্রতি খেয়াল রাখা ইত্যাদি বিষয়েও একজন ভালো লীডারের সচেতন হতে হয়। মনোবিদ গার্ডনারের মতে, এটিও একটি বুদ্ধিমত্তা, তা হলো – Bodily-kinesthetic intelligence।

আরেকটি হচ্ছে AQ (Adversity Quotient)। প্রতিকূল পরিবেশে নিজেকে টিকিয়ে রাখার ক্ষমতা। এমন অনেক মানুষ দেখা যায়, যারা সামান্য সমস্যাতে বিরক্ত হয়ে যায়, সামান্য বিপদে একেবারে খেই হারিয়ে ফেলে, সামান্য পরীক্ষাতেই অধৈর্য হয়ে পড়ে। অথচ একজন সত্যিকারের লীডারকে ‘ইমোশনালি রেজিলিয়েন্ট’ হতে হয়। বিপদাপদে ভেঙে না পড়া, পড়তে পড়তেও উঠে দাড়ানোর ক্ষমতা রাখা, কঠিন পরিস্থিতিতে মানসিক স্থিরতা বজায় রেখে কাজ করে যাওয়ার মানসিকতা। এই ক্ষমতা যার যত বেশি, তার একিউ তত বেশি।

wbt5scaled

সর্বশেষ যেটির কথা বলবো, সেটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, তা হচ্ছে SQ (Spirituality Quotient)। যেকোন পরিস্থিতিতে নিজের আত্মিক ও বাহ্যিক শান্তি বজায় রেখে প্রজ্ঞা ও সহনশীলতার সাথে আচরণ করা। প্রজ্ঞা ও সহানুভুতি-সহনশীলতাই হলো এই কোশেন্টের মূল স্তম্ভ। আর এই গুণসম্পন্ন ব্যক্তিরা নিজ জীবনের প্রকৃত উদ্দেশ্য, উচ্চতর লক্ষ্য নিয়ে সচেতন থাকেন, আধ্যাত্মিকতায় অগ্রসর থাকেন। প্রকৃতপক্ষে এই স্পিরিচুয়ালিটিই মানুষের জীবনের সামগ্রিক কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। একজন মুসলিম যে কিনা জীবনবিধান আল-কুরআনের প্রতিটি নির্দেশনা অনুসরণের চেষ্টা করে, তার এসকিউ নিঃসন্দেহে অন্যদের চেয়ে বেশি হবে, যদি সে সত্যিকারেই চেষ্টা করে থাকে।

অনেক হলো Q নিয়ে জানাশোনা। এসব কিউ এর মধ্যে গুরুত্বের দিক থেকে এভাবে একটি সিরিয়াল করা যায়- SQ > EQ > IQ> PQ > AQ 

0

একজন লীডারকে সফল হতে হলে তার চরিত্রে এই ৫ কিউ এর সংমিশ্রণ থাকতে হয়। অন্য কথায় এই কিউগুলোর মধ্যে যেটির অনুপাত যার মাঝে যত বেশি, লীডার হিসবে তার এক্সিলেন্সের সম্ভাবনা তত বেশি। আর হ্যা, এগুলো শুধু লীডারের জন্যই নয়, প্রতিটি মুসলিম এই পৃথিবীতে একজন খলিফা বা প্রতিনিধি, প্রত্যেক মুমিনই তার নিজ কমিউনিটির একজন লীডার। এই ৫ টি কিউ এর সঠিক কম্বিনেশান তাই একজন মুমিন হিসেবে আমাদেরও সফলতার পথ দেখাতে পারবে, ইনশা আল্লাহ।